শিরোনাম:
আশুলিয়ায় এক যুবকের অর্ধ-গলিত লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। সাংবাদিকের ওপর সন্ত্রাসী হামলা করায় ৮ জনকে কারাগারে সাভার কেয়ার হাসপাতালে ভূল চিকিৎসার তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে সাংবাদিককে হত্যার হুমকি নুসরাত হত্যা ওসি মোয়াজ্জেমকে রংপুরে বদলির প্রতিবাদে জুতা প্রদর্শন! আশুলিয়ায় বাড়িওয়ালার হাতুড়িপেটায় মা-মেয়ে গুরুতর আহত সাভারের আশুলিয়ায় মা মেয়ে সহ ৩ নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে ভন্ড পীর গ্রেপ্তার। প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া চাকরিতে যোগ দিলেন নুসরাতের ভাই পিবিআই’র আন্তরিকতায় শিল্পী হত্যার মূলরহস্য উৎঘাটন করতে পেরেছি: ইনস্পেক্টর সুরুজ উদ্দিন ফোন চুরি যাওয়ায় সাংবাদিকদের আটকে রাখলেন শমী কায়সার! শমী কায়সারের পজেটিভ সংবাদ বর্জনের দাবি বিএমএসএফ’র বিদায় বেলায়ও মা-বাবাকে কাছে পেলেন না জায়ান সাভারে বিরল প্রজাতি গন্ধগোকুল উদ্ধার সেফাতউল্লাহ ওরফে সেফুদা’র বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আশুলিয়ায় এক নারীর মৃতদেহ উদ্ধার! আশুলিয়ায় যত্রতত্র বিক্রয় হচ্ছে বিপদজনক মেয়াদ উর্ত্তীণ গ্যাস সিলিন্ডার গার্মেন্টসকর্মী মাহাবুর হত্যার রহস্য উন্মোচন, চাপাইনবাগঞ্জ থেকে স্বামী-স্ত্রী গ্রেপ্তার ওসির অনুরোধে নুসরাত হত্যাকাণ্ডকে আত্মহত্যা বলে স্ট্যাটাস দেন সাংবাদিক নবম শ্রেণির পরীক্ষার প্রশ্নে সানি লিওন, মিয়া খলিফা! চট্টগ্রামে নুসরাত হত্যার দ্রুত বিচার দাবিতে বিএমএসএফ’র সমাবেশ জনপ্রিয়তার প্রতিহিংসায় ষড়যন্ত্রের কারাগারে সাবেক ভোলা জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি- মোস্তাক শাহিন এক পিস জুতার অনুসন্ধানে খুনের অভিযোগে ৯ জনকে গ্রেফতার সাভার পুলিশ। সাংবাদিকের দিকে আঙ্গুল তুললে হাত ভেঙ্গে দেয়া হবে…বিএমএসএফ আশুলিয়ায় মটর শ্রমিক লীগের ব্যানার ছেরায় থানায় অভিযোগ। সাভারে জনসমুক্ষে যুবককে কুপিয়ে হত্যা, মরদেহ এনাম মেডিকেলে আশুলিয়ায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ৮ ডাকাত আটক! সাভারে হত্যা করে গুমের তিনদিন পর স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার ভাসমান লাশ উদ্ধার সাভারে গ্যাস সিলিন্ডারে ৪৬ হাজার ইয়াবা, আটক ২ ৩৯ লাখ টাকার ব্রিজ ব্যবহার করে একটি পরিবার! সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন নুসরাত হত্যাকাণ্ডে জড়িতরা বিন্দুমাত্র ছাড় পাবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। অবৈধ গ্যাসলাইন কাটতে গেলে তদবির আসে : জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নুসরাতের জানাজার নামাজে লোকজন এর ঢল! বাবা নিজেই জানাজা পড়ান! আশুলিয়ায় সাংবাদিকের উপর সন্ত্রাসী হামলা ! দু’সপ্তাহ আগেও আর দশজনের মতো হাসিখুশি ছিলেন নুসরাত জাহান রাফি। নুসরাতের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক ফেনীর সেই মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত মারা গেছেন ইনিউজ ডেস্ক সাংবাদিকরা সবচেয়ে জীবনের বেশি ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে থাকে! পাবনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হাতে অস্ত্র জমা দিয়ে ৬ শতাধিক চরমপন্থীর আত্নসমর্পন করবেন! রানা প্লাজার সোহেল রানার জামিন আবেদন খারিজ! আশুলিয়ায় দেওয়াল ধসের আতংকে এলাকা বাসি সাভারে এক নারীকে চাকুরির প্রলোভন দেখিয়ে গন ধর্ষন, আটক ৫ দগ্ধ নুসরাতকে সিঙ্গাপুর নেওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ভূমির ড্রেজিং করায় ১০০ একর জমি নদীর গর্ভে বিলীন!? সাভারে নারীর লাশের সঙ্গে ২ হাজার ৬০ পিচ ইয়াবা উদ্ধার পরকীয়ার জেরে প্রবাসীর দাম্পত্যে আত্মহত্যা শেখ হাসিনার অঙ্গীকার ১০ টাকা ধরে পাবে চাউল। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন পাথালিয়া ইউনিয়নে চলছে মাদকের ছড়াছড়ি হামলার সময় হেলমেট পরার নির্দেশ দিয়েছিলেন নেতারা আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) ফাউন্ডেশনে ভর্তি দ্বায়িত্ব নিয়েছে শাকিলের যাকেই মনোনয়ন দেওয়া হবে তাকেই মেনে নিতে হবে : প্রধানমন্ত্রী মন্তব্য করুন জিএমপি’র কাশিমপুর থানায় কুখ্যাত মাদক সম্রাট আঃ জলিল ৬০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট সহ গ্রেফতার।। জিএমপি’র কাশিমপুর থানায় ইয়াবা সহ আটক-১।
অবৈধ গ্যাসলাইন কাটতে গেলে তদবির আসে : জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী

অবৈধ গ্যাসলাইন কাটতে গেলে তদবির আসে : জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী

অবৈধ গ্যাসলাইন কাটতে গেলে তদবির আসে : জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী

বকেয়া বিল আদায় ও অবৈধ গ্যাসলাইনের সংযোগ বিছিন্ন করতে গেলেই মহল থেকে তদবির আসে বলেছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। তিনি বলেন, অনেক অবৈধ সংযোগ রয়েছে। আমরা বকেয়া বিল আদায় ও অবৈধ গ্যাসলাইনের সংযোগ বিছিন্ন করতে গেলেই সমস্যা। ওপর মহল থেকে তদবিরের জন্য ফোন আসে। আর আমরা সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিলে কারখানা বন্ধ হয়ে যাবে, অনেক শ্রমিক বেকার হবে। এসব বিবেচনা করে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে পারি না।

আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই) আয়োজিত ‘জ্বালানির মূল্য নির্ধারণ : শিল্পখাতে এর প্রভাব’ শীর্ষক সেমিনারে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী বলেন, গ্যাস যেহেতু প্রাকৃতিক সম্পদ, কাজেই এর যথাযথ এবং পরিমিত ব্যবহার নিশ্চিত করা জরুরি। তিনি বলেন, গ্যাস এবং বিদ্যুৎ খাতে সরকার বিপুল পরিমাণে ভর্তুকি দেয় অথচ এই দুই খাতে বকেয়া বিলের পরিমাণ বর্তমানে প্রায় সাড়ে ১২ হাজার কোটি টাকা (১০ এপ্রিল পর্যন্ত)। এর মধ্যে বিদ্যুতে বকেয়া ৬ হাজার ৬৬২ কোটি টাকা আর গ্যাসে ৬ হাজার কোটি টাকা।

নসরুল হামিদ বলেন, বর্তমান সরকার ২০০৯ সাল থেকেই গ্যাস ব্যবস্থাপনার বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়েছে এবং এজন্য গ্যাস ব্যবস্থাপনার একটি মহাপরিকল্পনাও হাতে নিয়েছে। তবে গ্যাস উত্তোলনের ক্ষেত্রে সম্ভাবনা, খরচ এবং সেই পরিপ্রেক্ষিতে প্রাপ্তির বিষয়টি সামঞ্জস্যপূর্ণ বা ন্যূনতম লাভজনক হচ্ছে কীনা-তা যাচাই করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

মন্ত্রী বলেন, গ্যাসক্ষেত্রের কূপ খননের বিষয়টি মোটেও সহজসাধ্য বিষয় নয়। এই কাজের জন্য জন্য বিপুল পরিমাণে অর্থের পাশাপাশি সময় প্রয়োজন এবং সেই সঙ্গে প্রাপ্ত গ্যাসের পরিমাণ খরচ ও সময়ের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ হচ্ছে কী না- তা নিশ্চিত করা খুবই জরুরি।

এ সময় এক পরিসখ্যান তুলে ধরে প্রতিমন্ত্রী জানান, বর্তমানে বাংলাদেশে গ্যাসের চাহিদা প্রায় ৪০০০ এমএমসিএফডি, উৎপাদন হচ্ছে ২৭০০ এমএমসিএফডি গ্যাস এবং দেয়া হচ্ছে প্রায় ৩৪০০ এমএমসিএফডি গ্যাস।

তিনি বলেন, ‘বর্তমানে নিজস্ব গ্যাসে উৎপাদিত বিদ্যুতের উৎপাদন খরচ ইউনিটপ্রতি ২.৫৭ টাকা। নিজস্ব কয়লা দিয়ে উৎপাদিত বিদ্যুতের জন্য খরচ পড়বে ৬ টাকা, অন্যদিকে আমদানিকৃত কয়লা দিয়ে উৎপাদন করা বিদ্যুতের খরচ পড়ছে ইউনিটপ্রতি ৮.১০ টাকা।’

তিনি গ্যাস ও বিদ্যুৎ সম্পদের যথাযথ ব্যবহার ও ব্যবস্থাপনার জন্য শিল্প উদ্যোক্তাদের প্রতি পরিকল্পিত অর্থনৈতিক এলাকায় শিল্পোদ্যোগ নেয়ার বিষয়ে আহ্বান জানান। একই সঙ্গে ছড়িয়ে ছিটিয়ে বিচ্ছিন্ন স্থানে শিল্প-কারখানা স্থাপন না করে প্রস্তাবিত বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে শিল্প-কারখানা স্থাপন ও স্থানান্তরের উদ্যোগ নেয়া হলে সরকার নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস ও বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করবে বলে জানান।

ডিসিসিআইয়ের সভাপতি ওসামা তাসীরের সভাপতিত্বে আলোচনায় বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোহাম্মদ আলী খোকন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতত্ত্ব বিভাগের সুপারনিউমারারি অধ্যাপক ড. বদরুল ইমাম এবং বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. ইজাজ হোসেন অংশগ্রহণ করেন।

ঢাকা চেম্বারের সভাপতি ওসামা তাসীর বলেন, শিল্প উৎপাদন অব্যাহত রাখতে অধিকতর চাপসম্পন্ন গ্যাসের নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহ নিশ্চিত করা খুবই জরুরি। তিনি বলেন, প্রস্তাবিত মূল্য বৃদ্ধির হার কার্যকর হলে, শিল্পখাতের উৎপাদন খরচ বাড়বে, বিশেষ করে সার, বস্ত্র, ডেনিম, তৈরি পোশাক, সিমেন্ট, স্টিলসহ বিভিন্ন খাতে প্রভাব পড়বে। বিশ্ব বাজারে প্রতিযোগী দেশের সঙ্গে ব্যবসায় টিকে থাকতে হলে স্বল্পমূল্যে নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস সরবরাহ নিশ্চিতের দাবি জানান তিনি।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিদ্যুৎ বিভাগের প্রাক্তন সচিব ড. এম ফওজুল কবির খান। তিনি বলেন, ‘গ্যাসের প্রস্তাবিত মূল্য বৃদ্ধি করা হলে, বিদ্যুৎ উৎপাদন ব্যয় ৯৩.৭৩ শতাংশ মূল্য বৃদ্ধি পাবে, পাশাপাশি টেক্সটাইল, সিমেন্ট ও স্টিল খাতে যথাক্রমে ১৮.০৬ শতাংশ, ১.৯৩ শতাংশ এবং ৭.৩৭ শতাংশ উৎপাদন ব্যয় বাড়বে। তিনি অবৈধ গ্যাস ও বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্নকরণ, এলপিজি ব্যবহারকে উৎসাহিত করা এবং পিক ও অফপিক সময়ে আলাদা ট্যারিফ (শুল্ক) প্রবর্তনের প্রস্তাব করেন।

ভালো লাগলে অবশ্যই পোস্টটি শেয়ার করবেন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।




© All rights reserved © gtvbangla.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com